জ্যোতিষ শাস্ত্র বিশ্বাস করবেন বা না করবেন সেটা আপনার ব্যক্তিগত ব্যাপার । তবে মাতালরাও যে দিনক্ষণ দেখে পানাহার করে বিশ্বাস করা কঠিন। আমার পরিচিত এক মাতাল যাকে আমরা পিতেলা বলি। মানে যে সব সময় পিয়ে করে সেই বলেছে- ভাই আমি রোজ মদ খাই না। শুধু আকাশ মেঘলা থাকলে খাই। আর রোদেলা দিনে খাই।
একবার একটা বারে গিয়ে দেখেছি বড় করে লেখা- ‘ আপনার রাশি কি ?’ জিজ্ঞেস করে জানতে পারলাম ওখানে রাশি অনুয়ায়ি আপনাকে ওয়াইন, বা ককটেল পরিবেশন করবে। অবশ্যই জ্যোতিষ শাস্ত্র মেনে। আপনি প্রশ্ন করতে পারেন- মিলন ভাই আপনি বারে গিয়েছিলেন কি করতে ?
ভাই , নিশ্চয়ই এক গ্লাস লেবু পানি খেতে নয় ?
যাক , অনেক ঘাঁটা ঘাঁটি করে আর জ্যোতিষী রবার্টা ফোরোটো এবং জ্যোতিষী ক্যারেন পালমারের সাথে কথা বলে যা জানলাম তাই বলছি।আশা করছি ওয়াইন কেনার সময় বোতলের লেবেল দেখে কিনবেন না। নিজের রাশির সাথে মিলিয়ে কিনবেন। যদি আপনি জ্যোতিষ শাস্ত্র বিশ্বাস করেন , তবে আরকি।
কুম্ভ রাশি ( জানুয়ারির ২০ থেকে ফেব্রুয়ারি ১৮ ) – এই রাশির জাতকের জন্য অরেঞ্জ ওয়াইন সেরা। বছর পাঁচের আগেও সবাই রেড ওয়াইন আর সাদা ওয়াইন চিনত। এখন কমলা রঙের ওয়াইন বেশ জনপ্রিয়। বাদাম এবং হালকা চেরির স্বাদ।
মীন রাশি ( ফেব্রুয়ারি ১৯ থেকে মার্চ ২০ ) – রোজ ওয়াইন। সালাদের সাথে।
মেষরাশি ( মার্চ ২১ – এপ্রিল ১৯ ) – লাল ওয়াইন মেলবেক ( MALBEC) । কালচে রঙের আঙুর দিয়ে তৈরি।
বৃষ রাশি (২0 এপ্রিল – ২0 মে)- পিনোট নূর ( Pinot Noir) রেড ওয়াইন। অপূর্ব এই ওয়াইনটা চেরি, ভ্যানিলা, রাস্পবেরি, লবঙ্গ এবং ক্যারমেলের সৌরভে পাওয়া যায়। পনীরের কুঁচির সাথে জমে ভাল।
মিথুন রাশি ( মে ২১- জুন ২০ ) – পিনোট গ্রিগো ( PINOT GRIGIO) রুচিবর্ধক চমৎকার স্বাদ গন্ধযুক্ত ওয়াইন। গরমের দুপুরে অপূর্ব। জনপ্রিয়তার দিক দিয়ে আমেরিকার দ্বিতীয় ওয়াইন। লেবু, সবুজ আপেল আর হানিসাকল নামের গুল্মের ঘ্রান পাওয়া যায় এই অয়াইনে। ইতালিতে প্রচুর উৎপাদন হয়। ঠাণ্ডা অবস্থায় পান করতে হয়।
কর্কট রাশি ( জুন ২১ – জুলাই ২২) -রীস্লিং (Riesling) নামের আপেল আর নাশপাতির ঘ্রানঅয়ালা সাদা ওয়াইন। জার্মানি আর অস্ট্রিয়ার এই ওয়াইনটা সরু বোতলে বাজারে আসে। আর সব ওয়াইনের চেয়ে স্বাদে অনেক মিষ্টি।
সিংহরাশি ( জুলাই ২৩- আগস্ট ২২ )- সায়রা নামের কালচে লাল ওয়াইন। বিভিন্ন সৌরভে পাওয়া যায়। যেমন- ব্ল্যাকবেরি। ব্লু বেরি। জলপাই, ভ্যানিলা, পুদিনা, রোজমেরি । ব্লুচিজ বার্গার বা বারবিকিউ করা মাংসের সাথে এই ওয়াইন দারুন।
কন্যারাশি ( আগস্ট ২৩- সেপ্টেম্বর ২২ ) – মোস কাটো (Moscato ) ওয়াইন। মিষ্টি স্বাদের ইটালিয়ান ওয়াইন। কমলা আর পিচ ফলের সৌরভে পাওয়া যায়। অ্যালকোহলের পরিমান খুবই কম। মাত্র ৫ থেকে ৭ পারসেন্ট। হালকা বুদ্বুদ উঠে ছিপি খোলার পর। সি ফুডের সাথে ভাল যায়। যেহেতু স্বাদে মিষ্টি কেক বা বেরি পাইয়ের সাথেও দারুন।
তুলারাশি ( সেপ্টেম্বর ২৩ – অক্টোবর ২২ ) – লামবুসকো রেড ওয়াইন। (LAMBRUSCO) মোটেও দামি কোন ওয়াইন না। সস্তা লাল বুদ্বুদ উঠা পানীয়। রঙ ঘন বেগুনি। ইতালির জিনিস। চেরি, ব্ল্যাকবেরি আর ভায়োলেট ফুলের সৌরভে পাওয়া যায়।
বৃশ্চিকরাশি ( অক্টোবর ২৩- নভেম্বর ২১ ) -সাভিভনন ব্লাঙ্ক । সাদা ওয়াইন। ফ্রান্সের জিনিস। আজকাল সব দেশেই পাওয়া যায়। সবুজ আপেল, লেবু, এবং প্যাশন ফলের স্বাদে পাওয়া যায়।
ধনুরাশি ( নভেম্বর ২২- ডিসেম্বর ২১ ) – চার্ডননি ওয়াইন, সাদা এই ওয়াইনটা পৃথিবীর সবচেয়ে জনপ্রিয় ওয়াইন। এটার জন্ম ও ফ্রান্সে। বার্গান্ডি নামে একটা এলাকায় উৎপন্ন হত প্রথম দিকে। তাই হোয়াইট বার্গান্ডি বলতো সেই সময়। পরে ধীরে ধীরে জনপ্রিয়তা বাড়তে থাকে। নাম ও বদল হয়। এই মুহূর্তে চার্ডননির জনপ্রিয়তা মধ্যগগনে। কোন এক ফুড রাইটার এই ওয়াইনকে বলেছেন- কিস অভ ভ্যানিলা। মাছ বা সি ফুডের সাথে দারুন।
মকররাশি ( ডিসেম্বর ২২- জানুয়ারি ১৯ ) – কেবারনেট সভিগনন। গাঢ় রুবি রঙের এই ওয়াইন বিশ্ব বিখ্যাত, এটার জন্ম ও ফ্রান্স। সাড়ে ১৩ পারসেনট থেকে ১৫ পারসেনট অ্যালকোহল আছে । সব ওয়াইন এমনিতেই পান করা যায়। শুধু এই ওয়াইন পান করার সময় খাবার লাগবেই। ভাল হয় গরু বা ভেড়ার মাংসের সাথে।
তো , এই হচ্ছে সব রাশি নিয়ে দেয়া ব্যবস্থাপত্র। যাই কিনুন দুই বোতল কিনবেন প্লিজ। দ্বিতীয়টা আমার জন্য।

মতামত জানান