সৌরজগৎ এর গ্রহগুলোর মধ্যে প্রতিবেশি হিসেবে খুব সম্ভবত মঙ্গলই আমাদের সবচেয়ে প্রিয় গ্রহ। গল্প কথা থেকে সায়েন্স ফিকশন, আমাদের কল্পনার রাজ্য জুড়ে নানাভাবেই হাজির হতে দেখা গিয়েছে এই গ্রহকে বিভিন্নভাবে। আজকের জানা অজানার এই পর্বে চলুন আমরা এই মঙ্গল গ্রহ সম্পর্কেই কিছু তথ্য জেনে নেই।

সৌরজগৎ এর চতুর্থতম এই গ্রহটির নামকরণ করা হয়েছিলো মূলত রোমানীয় যুদ্ধের দেবতা মার্স এর নামানুসারে।

মঙ্গলগ্রহকে প্রায়ই লালগ্রহ হিসেবে ডাকতে শুনা যায়। এই গ্রহকে দেখতে লাল হবার কারণ হচ্ছে এর পাথুরে মাটিতে প্রচুর পরিমাণে আইরন অক্সাইডের উপস্থিতি থাকা।

মঙ্গলের আঁকার আমাদের পৃথিবীর মাত্র অর্ধেকের সমান।

সূর্য থেকে দূরত্বে বেশ দূরে থাকায় মঙ্গলের আবহাওয়া খুব শীতল। কিছু কিছু ক্ষেত্রে এটি প্রায় মাইন ১৪০ ডিগ্রী সেলসিয়াসে নেমে যাতে পারে।

পাথুরে এই গ্রহেই রয়েছে আমাদের সৌরজগতের সবচেয়ে উচু পর্বতের অবস্থান।

অভিকর্ষজ বল কম হবার কারণে আপনি মঙ্গলে পৃথিবীর তুলনায় লাফিয়ে প্রায় তিনগুণ বেশি উঁচুতে উঠতে পারবেন।

আমাদের সবেধন নীলমনি একটা মাত্র চাঁদ থাকলেও, মঙ্গলের রয়েছে দুটি চাঁদ। চাঁদদুটো আবার বেশ ভালো দুটো নামও রয়েছে। একটার নাম ফোবোস আরেকটার নাম ডেইমস।

মঙ্গলে এক দিন হয় ২৪ ঘন্টা ৩৭ মিনিটে। দিনের হিসেবে আমাদের থেকে খুব একটা বেশি নাহলেও, মঙ্গলে কিন্তু এক বছর হয় আমাদের হিসেবে প্রায় ৬৮৭ দিনে!

মতামত জানান