Site icon খিচুড়ি

রূপসী কিংবা ভয়ঙ্কর মেডুসা

গ্রীক মিথোলজির এক ভয়ঙ্কর দানবী ছিলো, যার নাম মেডুসা। মেডুসা কিন্তু প্রথমে দানবী ছিলো না।  একসময় সে অত্যন্ত সুন্দরী ছিলো। সে অতি সুন্দরী ছিলো; ছিলো তাঁর দিঘল সোনালী চুল। দেবী অ্যাথেনার সেবায় ব্রতী হয়ে সে নিজেকে উৎসর্গ করে দিয়েছিলো যতক্ষণ না পসাইডন-এর সাথে তাঁর প্রেমের সম্পর্ক হয়। একসময় সে তাঁর ব্রতের বিরুদ্ধে গিয়ে পসাইডনের সাথে মন্দিরের ভেতরেই শারিরীক সম্পর্কে লিপ্ত হয়। এই কারণে ক্ষুব্ধ হয়ে দেবী অ্যাথেনা মেডুসাকে নৃশংস শাস্তি দেয়। দেবী অ্যাথেনা অভিশাপ দিয়ে মেডুসাকে ভয়ানক গর্গনে পরিণত করেন। তাঁর চোখ হয়ে যায় রক্তরাঙা, চেহারা হয়ে যায় নৃশংস। অতিসুন্দর চুলগুলো পরিণত হয়ে এক-একটা বিষধর সাপ হয়ে যায়। তাঁর সাদা দুধে আলতা গায়ের রঙ হয়ে যায় সাপের মতো সবুজাভ। মেডুসাকে সবাই অতি অপছন্দ আর এড়িয়ে চলতে শুরু করে।  অ্যাথেনার অভিশাপ এতোই প্রকট ছিলো যে কেউ তাঁর দিকে সরাসরি তাকাতে পারতো না। কেউ সরাসরি তাকালেই সে পাথরে পরিণত হতো কিংবা মেডুসা কারো উপর অসন্তুষ্ট হলেই তাঁর চোখের দৃষ্টি দিয়ে পাথর বানিয়ে দিতো।

মেডুসা

মেডুসা সম্পর্কে বিশেষ তথ্যঃ

 

মেডুসা গ্রিক পুরাণের সবচেয়ে বিখ্যাত চরিত্রগুলির মধ্যে একটি। এটি প্রমাণিত হয়েছে কারণ মেডুসা পপ সংস্কৃতিতে চিত্রিত হচ্ছে। তিনি কেবল গল্পেই নয় বরং ইতিহাসেও অমর।

যে বইগুলো কিনতে পারেন ডিস্কাউন্ট রেটে থেকে:

Loading books...
Exit mobile version